• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫

বিএনপি সংসদে না এসে ‘রাজনৈতিক ভুল’ করছে: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপি সংসদে না এসে ‘রাজনৈতিক ভুল’ করছে: প্রধানমন্ত্রী

সেন্ট্রাল ডেস্ক১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৬:৪২পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সংসদে না এসে রাজনৈতিক ভুল করছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার জাতীয় সংসদে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে অল্প সিট পেয়েছে, সেই অভিমান করে তারা পার্লামেন্টে আসছেন না, আমার মনে হয় রাজনৈতিক একটা ভুল সিদ্ধান্ত তারা নিয়েছেন। কারণ ভোটের মালিক জনগণ, তারা যাকে খুশি তাদের ভোট দেবেন এবং সেইভাবেই তারা ভোট দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমরা সবার সম্মিলিতভাবে দেশটাকে গড়ে তুলতে চেয়েছি। এ জন্য নির্বাচনের আগে সকল দলকে ডেকেছিলাম। তাদের সঙ্গে সুন্দর পরিবেশে বৈঠক করেছি এবং নির্বাচন করার আমন্ত্রণ করেছিলাম।

শেখ হাসিনা বলেন, ১০ বছরের উন্নয়নের সুফল বাংলাদেশের মানুষ পেয়েছে বলেই বহু পূর্ব থেকে তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তারা আমাদের নৌকা মার্কায় ভোট দেবেন। জনগণ সেই ভোট দিয়েছেন।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, যদি তারা সংসদে আসে আর তাদের যদি কোনো কথা থাকে, তা বলার একটা সুযোগ পাবেন। এই সুযোগ কেবল সংসদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে না। এখন সংসদের কার্যক্রম মিডিয়াতে সরাসরি যায়, সংসদ টেলিভিশনও আছে। এটার মাধ্যমে সারা দেশবাসী তাদের কথা শুনতে পাবেন।

জাতীয় পার্টির ফখরুল ইমামের প্রশ্নের জবাবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে সংসদে আসার আহ্বান জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, এই সুযোগটা তারা কেন হারাচ্ছেন, আমি জানি না। তবে আহ্বান এটাই থাকবে যারা নির্বাচিত হয়েছেন, তারা সবাই পার্লামেন্টে আসবেন, বসবেন এবং যার যার কথা তারা বলবেন। সেই আহ্বান জানাচ্ছি।

জাতীয় পার্টির রুস্তম আলী ফরাজীর প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে আত্ম মর্যাদাশীল দেশ হিসেবে বিশ্বের বুকে প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। দেশ আজ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শান্তি, গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলছে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফলে বাংলাদেশকে বিশ্ব সম্প্রদায় এখন সম্মানের দৃষ্টিতে দেখে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা জানান, চতুর্থবার সরকার গঠন করায় ৯৭টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানসহ বিভিন্ন সংস্থার প্রধানরা তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

সরকারি দলের মামুনুর রশীদ কিরনের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী একটি চক্র মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিকে ব্যবহারের মাধ্যমে রাজনীতি করে দেশের সুনাম ক্ষুন্ন করতে চেয়েছে।

‘তবে আমাদের ঐকান্তিক চেষ্টায় বারবার তা ব্যর্থ হয়েছে। এই কুচক্রী মহল দেশে যাতে কোনোভাবে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের ক্ষেত্র তৈরি করতে না পারে, সে ব্যাপারে আমরা সজাগ রয়েছি।’

যারা সাম্প্রদায়িক অপপ্রচারের নামে দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা ও সুনাম ক্ষুন্ন করবে তাদের প্রত্যেককে চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুশিয়ার করেন প্রধানমন্ত্রী।

 

টাইমস/জেডটি

কেমিক্যাল গুদাম না সরানো দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

কেমিক্যাল গুদাম না সরানো দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গুদাম না সরানোকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ কাজে তিনি সবাইকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন। শনিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালের (ঢামেক) বার্ন ইউনিটে চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দগ্ধ ও আহতদের দেখতে গিয়ে এ মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

ছাত্রদলের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু

ছাত্রদলের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে মনোনয়ন ফরম বিতরণ করছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। শনিবার সকাল ১০টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু হয়।

চট্টগ্রাম ও কালিহাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

চট্টগ্রাম ও কালিহাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

চট্টগ্রামের ডবলমুরিং ও টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছেন। ডবলমুরিংয়ে শুক্রবার গভীর রাত ও কালিহাতীতে শনিবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জানা যায়, চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার দনিয়ালাপাড়ায় শুক্রবার গভীর রাতে কাভার্ডভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বাবা ও ছেলে মারা গেছেন। তারা হলেন- মো. সগীর (৪২) ও মো. জোনায়েদ (১২)।

জাতীয়

প্রযুক্তি ও গুনগত শিক্ষা কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি করে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রযুক্তি ও গুনগত শিক্ষা কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি করে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রযুক্তি শিক্ষায় ও গুনগত শিক্ষায় যদি স্কুল কলেজের ছেলে-মেয়েরা শিক্ষিত হয় তবে তারা চাকরির জন্য বসে থাকবে না। বরং তারা নিজেরা চাকরি সৃষ্টি করে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে পারবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন।

আন্তর্জাতিক

ভারতে বিষাক্ত মদপানে ৪১ শ্রমিকের মৃত্যু

ভারতে বিষাক্ত মদপানে ৪১ শ্রমিকের মৃত্যু

ভারতের আসাম রাজ্যে বিষাক্ত মদপানে কমপক্ষে ৪১ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। আহত আরও ৪৫ শ্রমিককে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এদের মধ্যে ২০ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। বৃহস্পতিবার রাজধানী গুয়াহাটি থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার দূরে গোলাঘাট জেলার সালমারা চা-বাগানে এ ঘটনা ঘটে।

জাতীয়

১১ রোহিঙ্গা গ্রেফতার

১১ রোহিঙ্গা গ্রেফতার

কক্সবাজারের উখিয়ায় শরণার্থী ক্যাম্পে তিন জার্মান সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় ১১ রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার রাত ৮টা পর্যন্ত উখিয়ার কুতুপালং এলাকার লম্বাশিয়া ক্যাম্পসহ আশপাশের কয়েকটি ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

চাকরি

ফায়ার সার্ভিসে ১৮৫ জনের চাকরির সুযোগ

ফায়ার সার্ভিসে ১৮৫ জনের চাকরির সুযোগ

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরে পাঁচটি পদের বিপরীতে ১৮৫ জনকে নিয়োগ দিতে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।আগ্রহী প্রার্থীদের ৬ ও ৭ মার্চ নির্ধারিত স্থানে উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

অন্ধত্ব দূর করবে জিন থেরাপি

অন্ধত্ব দূর করবে জিন থেরাপি

অন্ধত্ব বা চোখের দৃষ্টিশক্তি হ্রাস মানুষের একটি সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা। বিশেষ করে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দৃষ্টিশক্তি ক্রমেই হ্রাস পেতে থাকে। কিন্তু বিজ্ঞানীরা একটি নতুন জিন থেরাপি উদ্ভাবন করেছেন, যা দৃষ্টিশক্তি হ্রাস ও অন্ধত্ব প্রতিরোধে কাজ করবে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি অক্সফোর্ডের এক নারী যিনি বার্ধক্য জনিত অন্ধত্ব (এএমডি) সমস্যায় ভুগছিলেন, তার উপর এই থেরাপি সফলভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ফায়ার বল: অত্যাধুনিক অগ্নিনির্বাপক প্রযুক্তি

ফায়ার বল: অত্যাধুনিক অগ্নিনির্বাপক প্রযুক্তি

বিশ্বে মানবসৃষ্ট দুর্ঘটনাগুলোর অন্যতম একটি অগ্নিকাণ্ড। বিশ্ব যত বেশি আধুনিক হয়েছে, এই দুর্ঘটনার প্রকৃতি ও ধ্বংসাত্মক প্রভাব তত বেড়েছে। আর সেই সঙ্গে আবিষ্কৃত হয়েছে আগুন নিয়ন্ত্রণের নানা প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তির অন্যতম একটি নতুন সংযোজন ‘ফায়ার বল’। ফায়ার বল হচ্ছে আগুন নেভানোর জন্য ব্যবহৃত একটি অত্যাধুনিক অগ্নিনির্বাপক বল। কোথাও বড় ধরনের আগুন লাগলে সেখানে এই বল ব্যবহার করে আগুন নিয়ন্ত্রণ করা হয়। এতে আগুন দ্রুত নিয়ন্ত্রণ করা যায় এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়।