• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫

স্ত্রী পরকীয়া করায় মেয়েকে গলাটিপে হত্যা!

স্ত্রী পরকীয়া করায় মেয়েকে গলাটিপে হত্যা!

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:৪২পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

স্ত্রীর পরকীয়ার সন্দেহে নিজের মেয়েশিশুকে গলাটিপে হত্যা করেছে এক যুবক। হত্যার পর শিশুটির লাশ খাটের নিচে পাতিলে লুকিয়ে রাখা হয়।

রোববার রাতে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত রফিকুল ইসলামকে সোমবার গাজীপুর সিটি করপোরেশনের জয়দেবপুর রেলগেট এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত শিশু মনিরা খাতুন শ্রীপুরের হাজি মোহাম্মদ আলী প্রি-ক্যাডেট স্কুলের প্লে শ্রেণিতে পড়ত।

সন্তান হত্যার অভিযোগে স্বামী রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নিহতের মা নাসরিন আক্তার।

পুলিশ জানায়, পারিবারিক কলহের জেরে রোববার বিকেলে রুমাল দিয়ে ঘুমন্ত মেয়ে মনিরার মুখ চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন তার বাবা। এরপর লাশ ঘরের খাটের নিচে থাকা পাতিলে লুকিয়ে রাখেন।

একাধিক পরকীয়ায় আসক্ত স্ত্রীর কাছ থেকে আলাদা হতে প্রতিবন্ধকতা দূর করতে রফিকুল এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ আর জানায়, ২০১২ সালে শ্রীপুর উপজেলার গোসিঙ্গা এলাকার গোলাপ হোসেনের মেয়ে নাসরিন আক্তারের সঙ্গে কাপাসিয়া উপজেলার চাপাত এলাকার মাঈন উদ্দিনের ছেলে রফিকুল ইসলামের বিয়ে হয়। এটি ছিল নাসরিনের তৃতীয় বিয়ে।

বিয়ের পর এ দম্পতি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সালনা এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে স্থানীয় পোশাক কারখানায় চাকরি নেন। ২০১৪ সালে রফিকুল ওমান চলে যান। সেখানে থাকাবস্থায় মেয়ে মনিরার জন্ম হয়।

এদিকে নাসরিন অন্য এক যুবকের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এ খবর শুনে ওমান থেকে দেশে ফিরে আসেন রফিকুল।

দেশে ফেরার পর পরকীয়ার সন্দেহে রফিকুল ও নাসরিনের মধ্যে প্রায়ই কলহ লেগে থাকতো। এরপর ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে রফিকুলকে ছেড়ে এক সহকর্মীর সঙ্গে পালিয়ে যান নাসরিন।

তবে আর কোনো ছেলের সঙ্গে পরকীয়া করবে না স্বীকারোক্তি দিয়ে রফিকুলের কাছে ফিরে আসেন নাসরিন।

১ ডিসেম্বর তারা শ্রীপুরের ডেনিমেক পোশাক কারখানায় চাকরি নিয়ে স্থানীয় কেওয়া পশ্চিমখণ্ড (মাস্টারবাড়ী) এলাকার ইয়াছিন হাজির ভাড়া বাসায় বসবাস করতে থাকেন।

কিছুদিন যেতে না যেতেই কারখানার এক সহকর্মীর সঙ্গে আবার পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন নাসরিন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ চলে আসছিল।

৮ ফেব্রুয়ারি স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করে কাপাসিয়ার চাপাত গ্রামের বাড়িতে চলে যান রফিকুল। পরে সন্তানকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করার পরিকল্পনা নিয়ে শনিবার বিকেলে কেওয়া পশ্চিমখণ্ড এলাকার ভাড়া বাড়িতে আসেন রফিকুল।

তবে ওইদিন নিজ সন্তানকে হত্যার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন তিনি।

রোববার সকালে স্ত্রী কারখানায় গেলেও অসুস্থতার কথা বলে রফিকুল বাসায় থাকেন। মধ্যাহ্ন বিরতিতে নাসরিন দুপুরে বাসায় গিয়ে মেয়ে ও স্বামীর সঙ্গে একত্রে খাওয়া-দাওয়া করে আবার কারখানায় চলে যান।

এরপর রফিকুল তার মেয়েকে নিয়ে ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। বিকেলে ঘুম থেকে উঠে রফিকুল রুমাল দিয়ে ঘুমন্ত মেয়ের মুখ চেপে ধরে শ্বাসরোধে করে হত্যা করেন। পরে লাশ ঘরের খাটের নিচে রাখা পাতিলে লুকিয়ে রেখে বাসা থেকে বের হয়ে যান।

বিকেল ৫টায় কারখানা ছুটির পর নাসরিন বাসায় ফিরে মেয়েকে না দেখে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। শেষমেশ কোথাও না পেয়ে বাইরে অবস্থান করা স্বামী রফিকুলের মোবাইলে ফোন করে মেয়ের খোঁজ জানতে চান তিনি। তখন রফিকুল বলেন, ‘আমরা অনেক দূরে চলে গেছি। আমাদেরকে আর পাবি না।’

এরপর ঘটনাটি পুলিশকে জানান নাসরিন আক্তার। খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাড়িতে যায় ও তল্লাশি চালায়। তল্লাশির একপর্যায়ে রাত ৯টার দিকে নাসরিনের ঘরের খাটের নিচে অ্যালুমিনিয়ামের পাতিলের ভেতর লুকিয়ে রাখা অবস্থায় শিশু মনিরার লাশ উদ্ধার করা হয়।

শ্রীপুর থানার ওসি জাবেদুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রফিকুল হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

 

টাইমস/জেডটি

কেমিক্যাল গুদাম না সরানো দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

কেমিক্যাল গুদাম না সরানো দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গুদাম না সরানোকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ কাজে তিনি সবাইকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন। শনিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালের (ঢামেক) বার্ন ইউনিটে চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দগ্ধ ও আহতদের দেখতে গিয়ে এ মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

ভারতে বিষাক্ত মদপানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮৪

ভারতে বিষাক্ত মদপানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮৪

ভারতের আসাম রাজ্যে বিষাক্ত মদপানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮৪ জন হয়েছে। অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আরও দুইশ জন। শনিবার আসাম রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা রয়টার্সকে বলেছেন, প্রতি দশ মিনিট পরপরই তারা নতুন নতুন জায়গা মৃত্যুর খবর পাচ্ছেন।

ছাত্রদলের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু

ছাত্রদলের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে মনোনয়ন ফরম বিতরণ করছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। শনিবার সকাল ১০টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু হয়।

জাতীয়

চট্টগ্রাম ও কালিহাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

চট্টগ্রাম ও কালিহাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

চট্টগ্রামের ডবলমুরিং ও টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছেন। ডবলমুরিংয়ে শুক্রবার গভীর রাত ও কালিহাতীতে শনিবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জানা যায়, চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার দনিয়ালাপাড়ায় শুক্রবার গভীর রাতে কাভার্ডভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বাবা ও ছেলে মারা গেছেন। তারা হলেন- মো. সগীর (৪২) ও মো. জোনায়েদ (১২)।

জাতীয়

প্রযুক্তি ও গুনগত শিক্ষা কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি করে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রযুক্তি ও গুনগত শিক্ষা কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি করে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রযুক্তি শিক্ষায় ও গুনগত শিক্ষায় যদি স্কুল কলেজের ছেলে-মেয়েরা শিক্ষিত হয় তবে তারা চাকরির জন্য বসে থাকবে না। বরং তারা নিজেরা চাকরি সৃষ্টি করে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে পারবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন।

জাতীয়

১১ রোহিঙ্গা গ্রেফতার

১১ রোহিঙ্গা গ্রেফতার

কক্সবাজারের উখিয়ায় শরণার্থী ক্যাম্পে তিন জার্মান সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় ১১ রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার রাত ৮টা পর্যন্ত উখিয়ার কুতুপালং এলাকার লম্বাশিয়া ক্যাম্পসহ আশপাশের কয়েকটি ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

চাকরি

ফায়ার সার্ভিসে ১৮৫ জনের চাকরির সুযোগ

ফায়ার সার্ভিসে ১৮৫ জনের চাকরির সুযোগ

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরে পাঁচটি পদের বিপরীতে ১৮৫ জনকে নিয়োগ দিতে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।আগ্রহী প্রার্থীদের ৬ ও ৭ মার্চ নির্ধারিত স্থানে উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

অন্ধত্ব দূর করবে জিন থেরাপি

অন্ধত্ব দূর করবে জিন থেরাপি

অন্ধত্ব বা চোখের দৃষ্টিশক্তি হ্রাস মানুষের একটি সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা। বিশেষ করে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দৃষ্টিশক্তি ক্রমেই হ্রাস পেতে থাকে। কিন্তু বিজ্ঞানীরা একটি নতুন জিন থেরাপি উদ্ভাবন করেছেন, যা দৃষ্টিশক্তি হ্রাস ও অন্ধত্ব প্রতিরোধে কাজ করবে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি অক্সফোর্ডের এক নারী যিনি বার্ধক্য জনিত অন্ধত্ব (এএমডি) সমস্যায় ভুগছিলেন, তার উপর এই থেরাপি সফলভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ফায়ার বল: অত্যাধুনিক অগ্নিনির্বাপক প্রযুক্তি

ফায়ার বল: অত্যাধুনিক অগ্নিনির্বাপক প্রযুক্তি

বিশ্বে মানবসৃষ্ট দুর্ঘটনাগুলোর অন্যতম একটি অগ্নিকাণ্ড। বিশ্ব যত বেশি আধুনিক হয়েছে, এই দুর্ঘটনার প্রকৃতি ও ধ্বংসাত্মক প্রভাব তত বেড়েছে। আর সেই সঙ্গে আবিষ্কৃত হয়েছে আগুন নিয়ন্ত্রণের নানা প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তির অন্যতম একটি নতুন সংযোজন ‘ফায়ার বল’। ফায়ার বল হচ্ছে আগুন নেভানোর জন্য ব্যবহৃত একটি অত্যাধুনিক অগ্নিনির্বাপক বল। কোথাও বড় ধরনের আগুন লাগলে সেখানে এই বল ব্যবহার করে আগুন নিয়ন্ত্রণ করা হয়। এতে আগুন দ্রুত নিয়ন্ত্রণ করা যায় এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়।